মঙ্গলবার রাত ১২:৩৫, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ. ২৭শে মে, ২০২৪ ইং

নেত্রকোনায় সাংবাদিক সংগঠনের আয়োজনে শোক দিবস পালন

২৪৭ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

গতকাল ১৫ আগস্ট নেত্রকোনায় শেখ হাসিনা প্রতিবন্ধী স্কুল এন্ড কলেজ ও বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ সংগঠন এর যৌথ উদ্যোগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উদযাপনে বিশেষ আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও গণভুজের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতেই কোরআন তেলাওয়াত করেন শেখ হাসিনা প্রতিবন্ধী স্কুল এন্ড কলেজের সহকারি শিক্ষক মাওলানা নুরুল ইসলাম।

উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নেত্রকোনা উপজেলার ৯নং ওয়ার্ডের চার চার বারের নির্বাচিত কমিশনার ও পৌরসভার প্যানেল মেয়র শেখ হেলাল উদ্দিন খান। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ সংগঠন-
বিএসকে এস- কেন্দ্রীয় কমিটি এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও সাবেক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ নেতা শেখ তিতুমীর আকাশ।

আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ সংগঠন -বিএসকে এস- কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যকরী সহ-সভাপতি প্রবীণ সাংবাদিক মোঃ আবুল কালাম, গোলাম মোস্তফা শেখ , প্রবীণ সাংবাদিক রফিকুল ইসলাম ,সিনিয়র সাংবাদিক মোহাম্মদ কাঞ্চন সিকদার সহ উপস্থিত ছিলেন ১নং যুগ্ন- সাধারণ সম্পাদক-সিনিয়র সাংবাদিক বি এম আশিক হাসান, গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক-সাংবাদিক মোঃ কামাল উদ্দিন ভূঁইয়া, প্রতিবন্ধী উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক-সাংবাদিক মোঃ মাসুদ মিয়া, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা- সুর্বনা আক্তার, কার্যকরী সদস্য -সিনিয়র সাংবাদিক বিমল চন্দ্র ঘোষ।

আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ সংগঠন, বিএসকে এস, কেন্দ্রীয় কমিটি কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি প্রবীণ সাংবাদিক মোঃ ফাইজুল হক গোলাপ, সাংগঠনিক সম্পাদক -সিনিয়র সাংবাদিক মোঃ আল মামুন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সাধারন সম্পাদক- নেত্রকোনা জেলা প্রেসক্লাব সিনিয়র সাংবাদিক শ্যামলেন্দু দাস ,নেত্রকোনা জেলা শিক্ষক সমিতি সাধারণ সম্পাদিকা – বাধন খাঁন পাঠান (ববি) সহ নেত্রকোনা জেলা প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সাংবাদিকরা।

আরো উপস্থিত ছিলেন শেখ হাসিনা প্রতিবন্ধী স্কুল এন্ড কলেজ পরিচালনা কমিটি বৃন্দ ও শিক্ষক শিক্ষিকা সহ স্কুলের প্রতিবন্ধী ছাত্র ছাত্রী এবং অভিভাবকবৃন্দ। উপস্থিত সুধীজনের সংক্ষিপ্ত বক্তব্য প্রদানের মাধ্যমে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসের প্রতি গুরুত্ব আরোপ রেখে জাতির জনকের প্রতি গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেছেন। পরে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ সংগঠন বিএসকে এস-কেন্দ্রীয় কমিটির প্রতিষ্ঠাতা /সভাপতি ও সাবেক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ নেতা শেখ তিতুমীর আকাশ ।

তিনি জাতির জনক ও সকল শহীদের প্রতি গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ এর মাধ্যমে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর অশ্রুঝরা ১৫ ই আগস্টে ৪৬ তম শাহাদাত বার্ষিকীর ইতিহাস ও তাৎপর্য তুলে ধরেন। তিনি আরো বলেন ইতিহাসের কালো অধ্যায় রচনাকারী সেই বিশ্বাসঘাতকদের রক্ত এখনো বাংলার আকাশে বাতাসে বয়ে বেড়াচ্ছে। জাতির জনকের আদর্শ আর ভালোবাসার মূল্য যারা দিল না তারা বাঙালি জাতির আদর্শ আর ভালবাসারও কান্ডারী নয়।

তাই সেই করুণ ইতিহাসের আধাঁরে’র বুক চিরে শহীদ পরিবার থেকে স্বয়ং আল্লাহ তাআলা যাকে বাঁচিয়ে রেখেছেন, তিনি বাংলার উন্নয়নের রূপকার ডিজিটাল বাংলার মহিয়সী জননেত্রী শেখ হাসিনা। এমতাঅবস্থায়, তিনি বর্তমান বঙ্গ-জননীর হাতকে শক্তিশালী করার জন্য সকল বাঙালি জাতির প্রতি আহ্বান করেছেন। তিনি বলেন হাজার বছরের শ্রেষ্ট বাঙ্গালীর জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলতে মুক্তিযুদ্ধো ও মুক্তিযোদ্ধাদের চেতনাকে যুগ যুগ ধরে রাখতে বঙ্গবন্ধু কণ্যা জননেত্রী শেখ রেহানার দিক নির্দেশনায় বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ সংগঠন এতিম অসহায় প্রতিবন্ধী ও সাংবাদিকদের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে বলে,সকলের দোয়া কামনা করেছেন।

তিনি বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ সংগঠনের প্রতিটি সদস্যই যেন দুর্নীতি ও সন্ত্রাস- জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধো ঘোষনা করে সৎ এবং নিষ্ঠার সাথে সংগঠন কে এগিয়ে যায়, সকলের কাছে সে আশা প্রত্যাশা ব্যক্ত করে তার সংক্ষিপ্ত বত্তব্য শেষ করেন। শেষে দোয়া মাহফিল ও সাংবাদিক এবং অসহায় প্রতিবন্ধীদের মাঝে গণভোজের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

Some text

ক্যাটাগরি: নাগরিক সাংবাদিকতা

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি