শুক্রবার ভোর ৫:১২, ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ. ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ইং

আটাশ দফার দফাভিত্তিক আলোচনার ২য় পর্ব অনুষ্ঠিত

৫৩০ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

গত শুক্রবার (৬ নভেম্বর, রাত সাড়ে ৭টায়) “বাংলাদেশ জাগরণী শান্তিসঙ্ঘের” উদ্যোগে চিন্তাবিদ, দার্শনিক, রেনেসাঁসসাধক আবুল কাসেম ফজলুল হকের  “২৮ দফা; আমাদের মুক্তি ও উন্নতির কর্মসূচি”র দফাভিত্তিক ধারাবাহিক ভার্চুয়াল আলোচনার ২য় পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন অধ্যাপক আবুল কাসেম ফজলুল হক। বাংলাদেশ জাগরণী শান্তিসঙ্ঘের আহ্বায়ক মোহাম্মদ শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই সভাটি সঞ্চালনা করেন শিক্ষাসেবক ডক্টর খান আজাদ।

এতে আলোচক হিসেবে যোগ দিয়ে ৫ম দফা- ‘সমবায় পদ্ধতি প্রবর্তন ও কর্মসংস্থান’ বিষয়ে অংশগ্রহণ করেন বল্লা করোনেশন কলেজ, কালিহাতি, টাঙ্গাইল এর তারিকুল ইসলাম ফিরোজ। দফা-৬: ‘শিক্ষাব্যবস্থার পুনর্গঠন-’ নিয়ে আলোচনা করেন বাংলাদেশ জাগরণী শান্তিসঙ্ঘের আহ্বায়ক মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম। ‘শিক্ষাব্যবস্থার পুনর্গঠন-২ দফা ৭’ নিয়ে আলোচনা করেন ডক্টর খান আজাদ, শিক্ষাসেবক, টাঙ্গাইল এবং দফা-৮: ‘প্রশাসনব্যবস্থার পুনর্গঠন’ বিষয়ে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন দেশ দর্শন সম্পাদক জাকির মাহদিন।

এছাড়া দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে এই ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে যুক্ত হয়ে আলোচনায় অংশ নেন আরও বেশ কয়েকজন আলোচক। নির্ধারিত আলোচক এবং সকল অংশগ্রহণকারী দেশে বিদ্যমান আর্থ-সামাজিক, রাজনৈতিক অস্থিরতা-বিশৃংখলা, মনুষ্যত্বের ও নৈতিকতার অধঃপতনে জর্জরিত জাতিকে উদ্ধার করতে আটাশদফা কর্মসূচি নিয়ে দেশজুড়ে কাজ করার আহ্বান জানান। বাংলাদেশকে জনগণের রাষ্ট্ররূপে গড়ে তোলার লক্ষ্যে গ্রামভিত্তিক সমবায়ব্যবস্থা প্রবর্তন করতে ‘এলাকাভিত্তিক’ কাজে হাত দিতে মনোযোগী হওয়ায় সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়।

জাতির বহুমুখী ধারাকে একীভূত করা, জনগণের মধ্যে ঐক্য-সংহতিবোধ জাগ্রত করা, জাতীয় চেতনার বিকাশ, দক্ষ জনবল গড়ে তোলা, জাতির মনে উন্নতির আকাঙ্ক্ষা জাগ্রত করা- সর্বোপরি জাতির আত্মশক্তি জাগিয়ে তোলার লক্ষ্যে শিক্ষাব্যবস্থার আমূল সংস্কার এবং একমুখী শিক্ষাব্যবস্থা গড়ে তোলার পক্ষে জনমত সৃষ্টির তাগিদ দেয়া হয়। একই সঙ্গে বিদ্যমান প্রশাসনব্যবস্থাকে ঢেলে সাজিয়ে স্বাধীন দেশের উপযোগী করে নৈতিকতা, উন্নত মানবিক চেতনা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিতের মাধ্যমে দুর্নীতি-অপশাসন এবং আমলাতান্ত্রিকতা দূর করার লক্ষ্য কাজ করার আহ্বান জানানো হয়।

উক্ত সভার সভাপতি আটাশ দফা নিয়ে দফাভিত্তিক আলোচনা চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন। তিনি আটাশ দফার ভিত্তিতে একটি সাংস্কৃতিক নবজাগরণ এবং তার আলোকে নতুন ধারার রাজনীতি এবং রাজনৈতিক দল গড়ে তোলার লক্ষ্যে শুভবুদ্ধি সম্পন্ন সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

Some text

ক্যাটাগরি: মতামত

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি