শুক্রবার সকাল ৬:৪৪, ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ. ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ইং

ব্রাহ্মণবা‌ড়িয়া বিশ্বরোডে ফল ব্যবসায়ী হত্যাকাণ্ডে মুফতী বোরহানকে হয়রানির প্র‌তিবাদ

গত ৩১ আগস্ট ব্রাহ্মণবাড়ীয়া বিশ্বরোড মোড়ে জাকির ও তারেক নামের দুজন ফল ব্যবসায়ির ম‌ধ্যে ক্রেতা‌কে ডাকাডাকি করা নিয়ে বাকবিতণ্ড শুরু হয়। সাথে সাথে পাশের দোকানদাররা তাৎক্ষণিকভাবে মীমাংসা করে দেন। কিন্তু পরবর্তীতে তারেকের পিতা সুবহান মিয়া দোকানে আসার পর পুনরায় বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। এর এক পর্যায়ে খাঁটিহাতার জাকির নন্দনপুরের তারেকের পিঠে ছুরিঘাত করে, এতে সে মারা যায়।

এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ব্রাহ্মণবা‌ড়িয়ার অন্যতম শীর্ষ আলেম আশুগঞ্জ সোনারামপুর মাদ্রাসাসহ বেশ কয়েকটি মাদ্রাসার শায়খুল হাদীস, জেলা ইসলামী ঐক্যজোটের সাধারণ সম্পাদক ও খাঁটিহাতা বিশ্বরোড মোড় দোকান মালিক ও ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সেক্রেটারি মুফতী বোরহান উদ্দিন কাসেমীসহ নির্দোষ ব্যক্তিদেরকে জড়ানোর অপচেষ্টা ও হয়রানির প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার বাদ আসর জেলার উলামায়ে কেরামদের এক প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলার শীর্ষ আলেম আল্লামা আলী আজম কাসেমী সাহেব এর সভাপতিত্ব করেন।

এ‌তে উপ‌স্থিত ছিলেন মাওলানা ইসহাক, মাওলানা মাহফুজ, মাওলানা জয়নাল আবেদীন বাকাইলি, মাওলানা মাজহারুল হক কাসেমী, মাওলানা মুফিজুর রহমান আসাদী, মাওলানা মইনুল ইসলাম,মুফতী মোহাম্মদ এনামুল হাসান, মাওলানা কাউসার মোল্লা, মুফতি মকবুল, মাওলানা শাহিন মোল্লা, মো জাকির হোসেন, মাওলানা নূরুল্লাহ,মাওলানা এমরান হুসাইন, মাওলানা হাফেজ ইসহাক আল মামুন,মাওলানা আহমেদ মুসা, মাওলানা আব্দুল কাইয়ুম প্রমুখ।

উক্ত সভায় বিশ্বরোড ফল ব্যবসায়ী হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে উলামায়ে কেরামগণ দোষী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি করেন।পাশাপাশি মুফতী বোরহান উদ্দিন কাসেমী সহ নির্দোষ ব্যক্তিদেরকে কোনো প্রকারের হয়রানি না করতে সংশ্লিষ্টদের উদাত্ত আহ্বান জানিয়েছেন।

Some text

ক্যাটাগরি: মতামত

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি