বৃহস্পতিবার সকাল ৬:৪৭, ১০ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ. ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ইং

বিপদে পাশে থাকা ইসলামের শিক্ষা

৩৫২ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

ইসলামের অন্যতম একটি শিক্ষা হল বিপদে একে অপরের পাশে থাকা।যথাসাধ্য সহযোগিতা করা।অার্থিকভাবে বা পরামর্শ দিয়ে। সমবেদনা প্রকাশ করা।সহমর্মিতা প্রকাশ করা।ত্রাস সৃষ্টি না করা।
দ্রুত বিপদ কেটে যাবে বলে আশ্বাস দেওয়া। আশার বাণী শুনানো। কারো বিপদে খুশী হতে নেই।আনন্দ প্রকাশ করতে নেই।মজা করতে নেই।
কারণ একটি বহুল প্রচলিত প্রবাদ আছে,
من ضحك ضحك
যে অন্যকে নিয়ে হাসে সে অন্যের হাসির পাত্র হয়।
আমাদের আকাবির আসলাফ (পূর্বসুরী)অন্যের বিপদে অনেক কষ্ট অনুভব করতেন।বিচলিত হতেন।বিপদ কেটে যাওয়া পর্যন্ত বিপদগ্রস্ত ব্যক্তির খবরাখবর রাখতেন।
ইমামে আযম ইমাম আবু হানিফা রহ. অপরের বিপদে কতটা বিচলিত হতেন নিম্নের ঘটনাটি তার সাক্ষী। ঘটনাটি আসেম ইবনে ইউসুফ থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, আবু হানিফার লোকদের উপর তাঁর যে অধিকার আছে এমন অধিকার কারো উপর কারো ছিলনা।তাঁর সঙ্গী ও সাথীদের কারো গায়ে মাছি বসলে তাঁর কষ্ট অনুভব হতো।আর তার কারণ ছিল তারা ছিল তাঁর দৃষ্টিতে অত্যন্ত সম্মানিত। তাঁর উপর তাদের এতটুকু অধিকার সাব্যস্ত হয়ে গিয়েছিল যে,একবার এক ব্যক্তি হন্তদন্ত হয়ে তার ঘরে গিয়ে ঢুকলেন।আবু হানীফা রহ. তাকে জিজ্ঞেস করলেন, তোমার কী হয়েছে?সে এক ব্যক্তির নাম নিয়ে বলল, অমুকে তার ঘরের ছাদ থেকে পড়ে গেছে। আবু হানীফা রহ. একথা শোনা মাত্রই এমন চিৎকার করে উঠলেন যে,মসজিদ থেকে লোকেরা তাঁর চিৎকার শুনতে পেল।এরপর তিনি হন্তদন্ত হয়ে খালি পায়ে তার কাছে ছুটে গেলেন এবং বললেন, যদি এ লোকটির কষ্ট তুলে নিয়ে নিজের উপর রাখতে পারতাম,তাহলে আমি তাই করতাম! এরপর কাঁদতে কাঁদতে তার ঘর থেকে বের হয়ে গেলেন এবং তখন থেকে লোকটি সুস্থ হওয়া পর্যন্ত সকাল- বিকাল তার কাছে আসা যাওয়া করতে থাকলেন।
(উকুদুল জুমান-২৯৬)
মুমিন বিপদগ্রস্ত হলে গুনাহ মাফ হয়।গোনাহ না থাকলে তার দারাজাত বুলন্দ হয়।
এ মর্মে একটি হাদিস বর্ণিত হয়েছে,
“‏ مَا مِنْ مُسْلِمٍ يُشَاكُ شَوْكَةً فَمَا فَوْقَهَا إِلاَّ كُتِبَتْ لَهُ بِهَا دَرَجَةٌ وَمُحِيَتْ عَنْهُ بِهَا خَطِيئَةٌ ‏”‏ ‏
যে কোন মুসলমানের গায়ে কাটা বিদ্ধ হয় কিংবা তার চাইতে অধিক (কোন আঘাত লাগে), তার পরিবর্তে তার একটি মর্যাদা বৃদ্ধি পায় এবং তার একটি গোনাহ মাফ করে দেওয়া হয়।
সহীহ মুসলিম হাদিস নং ৬৩২৭
বিপদগ্রস্ত ব্যক্তিকে শান্ত্বনা দিলে তার অনুরূপ ছাওযাব পাওয়া যায়।
হাদিসে পাকে বর্ণিত হয়েছে,
عَنْ عَبْدِ اللَّهِ، عَنِ النَّبِيِّ صلى الله عليه وسلم قَالَ ‏ “‏ مَنْ عَزَّى مُصَابًا فَلَهُ مِثْلُ أَجْرِهِ ‏”‏
‏আবদুল্লাহ রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত যে, নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, কেউ যদি
কোন বিপদগ্রস্থ লোককে সান্ত্বনা দেয় তবে সে সেই ব্যক্তির অনুরূপ প্রতিদান পাবে।
জামে তিরমিজি হাদিস নং ১০৭৩
সুনানে ইবনে মাজাহ হাদিস নং ১৬০২
আল্লাহ তায়ালা আমাদেরকে দ্বীনের জন্য কবুল করুন এবং দ্বীনের সঠিক বুঝ ও সমঝ দান করুন। আমীন।

আব্দুল্লাহ ইদরীস: লেখক, সংবাদকর্মী

Some text

ক্যাটাগরি: মতামত

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি