শুক্রবার সকাল ৭:১৬, ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ. ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ইং

এই সেই খাত্তাবপুত্র ওমর রা.

৩৩৭ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

ইসলাম ন্যায় ও ইনসাফের ধর্ম। রাজা-প্রজা সকলেই বিচারকের দৃষ্টিতে সমান। নেই কোন ভেদাভেদ। দাঁড়াতে হয় বিচারের কাঠগড়ায়।

টাকা দিয়ে কেনা যায় না বিচারক। যায় না কেনা বিচার। রায় আনা যায় না স্বপক্ষে। টাকার সামনে মাথা নত করেনা বিচারক।চলেনা এই শ্লোগান “টাকা যেখানে কথা বলে বিচার সেখানে নীরব থাকে।”

টাকা দিয়ে কেনা যায় না বিচারকের কলম।বিচারকের কলম চলে সদা সত্য ও ন্যায়ের পক্ষে। কলম চলে অত্যাচারিত-নিপিড়ীত ও মাজলুমের পক্ষে। কলম কোন রাষ্ট্রের আমলা -কামলার নিকট দায়বদ্ধ নয়। কলম দায়বদ্ধ ধর্মের কাছে। ইসলামের কাছে।

মোটকথা হলো, ইসলাম ন্যায় ও ইনসাফের ধর্ম। আজ আপনাদের সামনে তুলে ধরব আমীরুল মুমীন হযরত ওমর ইবনে খাত্তাব রা.এর শাসনামলের একটি ঘটনা।

চলছে হযরত ওমর রা. এর শাসনামল। মদীনার বিচারপতি তখন যায়েদ ইবনে সাবেত রা.। এক ব্যক্তির বিচারে অভিযুক্ত হয়ে ওমর রা.-কে আদালতে আসতে হলো। যায়েদ রা. খলিফাকে সম্মান করে বিচারপতির পাশে বসাতে চাইলে তিনি প্রতিবাদ করে বললেন, এটা ন্যায়বিচার নয়। আদালতে বাদী বিবাদী উভয়েই সমান। একথা বলে তিনি সাধারণ মানুষদের কাতারে স্বাভাবিকভাবে আসন গ্রহণ করলেন।

আব্দুল্লাহ ইদরীস: লেখক, সংবাদকর্মী

Some text

ক্যাটাগরি: মতামত

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি