বৃহস্পতিবার দুপুর ২:২৮, ১২ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ. ২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ ইং

ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রীকে জেলার সার্বিক পরিস্থিতি অবহিত করেন জেলা প্রশাসক ডঃ কেএম কামরুজ্জামান সেলিম।

৬৫৫ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

ঠাকুরগাঁওয়ে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে প্রধানমন্ত্রীর এ ভিডিও কনফারেন্সটি অনুষ্ঠিত হয়।

সোমবার ( ৪ মে) সকাল ১১ টায় ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্যের মধ্য দিয়ে রংপুর বিভাগের ৮ টি জেলার জেলা প্রশাসক, সিভিল সার্জন সহ আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য ও জেলার নেতৃবৃন্দের সাথে কথা বলেন।

শুরুতে পঞ্চগড় জেলার মধ্যদিয়ে এ কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসনের আয়োজনে দ্বিতীয় ধাপে ঠাকুরগাঁও জেলায় ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে কথা বলার সুযোগ পায় ঠাকুরগাঁওয়ে্য মানবিক জেলা প্রশাসক ডঃ কেএম কামরুজ্জামান সেলিম।

এসময় তিনি তাঁর সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে কর্মহীন ও অসহায়দের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ জেলা নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে সুষ্ঠু ভাবে বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছি। এছাড়া জেলায় এ পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে শনাক্ত ১৯ জনের কথাও এ কনফারেন্সে তুলে ধরেন জেলা প্রশাসক।

এ ছাড়া তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, অগ্রাধিকার ভিত্তিতে জেলায় জনসংখ্যার এক তৃতীয়াংশ মানুষের তালিকা প্রস্তুত করে এ ত্রাণ কর্মসূচির আওতায় এনে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করে তার বক্তব্যে তিনি বলেন, যারা লোকলজ্জার ভয়ে ত্রাণ সামগ্রী চাইতে পারেনা, তাদের জন্য জেলা প্রশাসনে হট লাইন নম্বরে ফোন করলে ত্রাণ সামগ্রী আপনার উপহার হিসেবে তাদের বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া হয়।
জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এ ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রমের নাম দেওয়া হয়েছে ।
“সময়ের দাবি, ত্রাণ যাবে বাড়ি”।

জেলা প্রশাসক বলেন,মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনি জেনে আনন্দিত হবেন যে এ জেলার শিশুরা তাদের নিজস্ব মাটির ব্যাংকে জমাকৃত টাকা
আপনার ত্রাণ তহবিলে অসহায়দের সহায়তা করার লক্ষ্যে জমা দিয়েছেন।এটিও আমাদেরকে বিস্মিত করেছে।
এছাড়া তিনি জেলার সার্বিক পরিস্থিতি তুলে ধরেন এবং এ কনফারেন্সে কথা বলার সুযোগ দেওয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক ধন্যবাদ জানান।

ভিডিও কনফারেন্সে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঠাকুরগাঁও ১ আসনের সাংসদ রমেশ চন্দ্র সেন এমপি গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য দেন। এসময় তিনি তাঁর বক্তব্যে এ অঞ্চলে ব্যাপক ধান ও সবজি হয়েছে বলেও জানান।
করোনা ভাইরাসে যে কয়জন শনাক্ত হয়েছে তা আপনার গুরুত্বপূর্ণ স্বাস্থ্যবীধি নির্দেশনাবলী মেনে চলার মাধ্যমে এ পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে সক্ষম হবো ইনশাআল্লাহ ।

এ ছাড়া তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে ঠাকুরগাঁও ও পঞ্চগড় জেলার জন্য হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে করোনা ভাইরাস পরীক্ষার জন্য একটি ল্যাব বসানোর দাবি জানান।

এছাড়া সাংসদ রমেশ চন্দ্র সেন এমপি ত্রাণসামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য জেলা প্রশাসককে ধন্যবাদ জানান।

পরে তিনি করোনা ভাইরাস বিস্তার রোধে
জননেত্রী শেখ হাসিনার দুরদর্শিতামূলক
পদক্ষেপ গ্রহণে তাকে ধন্যবাদ জানান।
এছাড়া ভিডিও কনফারেন্সে আরো বক্তব্য দেওয়ার সুযোগ পায়, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুহ.সাদেক কুরাইশী, সিভিল সার্জন ডাঃ মাহফুজার রহমান সরকার।

এসময় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে উপস্থিত ছিলেন, ঠাকুরগাঁও ৩ আসনের সংসদ সদস্য জাহিদুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) নুর কুতুবুল আলম,জেলা পুলিশ সুপার মোহা: মনিরুজ্জামান পিপিএম,জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দিপক কুমার রায়,সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড.অরুনাংশু দত্ত টিটো, প্রেসক্লাবের সভাপতি মনসুর আলী প্রমুখ।

এছাড়া জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

নুরে আলম শাহ::ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:

Some text

ক্যাটাগরি: নাগরিক সাংবাদিকতা

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি