মঙ্গলবার সকাল ১০:১৮, ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ. ২১শে মে, ২০২৪ ইং

মৌলভীবাজারে সবকটি প্রবেশমুখে জেলা পুলিশের তল্লাশিচৌকি

৪৮৮ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে পর্যটন জেলা মৌলভীবাজারে কঠোর অবস্থান নিয়েছে প্রশাসন। অন্যান্য জেলা থেকে যানবাহন ও মানুষের প্রবেশ নিয়ন্ত্রণে জেলার সবকটি প্রবেশপথসহ ৫টি স্থানে বসানো হয়েছে পুলিশের তল্লাশিচৌকি । জরুরি ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যবাহী গাড়ি ছাড়া কোনো যানবাহন জেলায় প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না।

একই সঙ্গে সাধারণ মানুষের চলাফেরায় আরও কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। অন্যান্য জেলা থেকে মৌলভীবাজারে প্রবেশের সবকটি সড়কের প্রবেশমুখে পড়তে হচ্ছে পুলিশের জেরার মুখে। পরিচয় এবং করোনা আক্রান্ত নন, এমনটা নিশ্চিন্ত হওয়ার পর প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া জেলায় প্রতিটি উপজেলায় প্রবেশ ও বাহিরের পথে চেকপোস্ট জোরদার করা হয়েছে।

মৌলভীবাজার সদর সার্কেলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জিয়াউর রহমান দেশ দরশনকে  জানান- বৃহস্পতিবার (৯ এপ্রিল) শ্রীমঙ্গলের সাতগাঁও, সদর উপজেলার শেরপুর গোলচত্বর, কুলাউড়ার ভাটেরা, রাজনগরের বান্দেরবাজার, বড়লেখার চান্দগ্রামে পুলিশ চেকপোস্ট বসানো হয়েছে।

জিয়াউর রহমান বলেন- ‘নভেল করোনা ভাইরাস ঠেকাতে পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ (পিপিএম, বার)-এর নেতৃত্বে মাঠে দিনরাত কাজ করছে মৌলভীবাজারের পুলিশ। এমনিতেই গণপরিহন বন্ধ আছে। এছাড়াও যান চলাচলে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। জেলার প্রবেশপথ ও অভ্যন্তরীণ গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে পুলিশের চেকপোস্ট জোরদার করা হয়েছে। বাইরের কেউ জেলায় প্রবেশ করতে চাইলে তিনি করোনা আক্রান্ত নয় মর্মে অবশ্যই তাকে আগত জেলার পুলিশের ছাড়পত্র দেখাতে হবে। বিস্তারিত খোঁজখবর নিয়ে তাকে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে। তবে থাকতে হবে হোমকোয়ারেন্টাইনে। প্রয়োজনে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হবে।’

নিশ্চিত হয়ে রোগীবাহী গাড়ি, ওষুধ, পণ্যবাহী গাড়ি, কৃষিপণ্য ও নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যবাহী গাড়ির মতো জরুরি সেবায় নিয়োজিত যানবাহন ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে।

এস এম আবু বকর : মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

Some text

ক্যাটাগরি: মতামত

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি