বৃহস্পতিবার দুপুর ১:২৫, ১২ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ. ২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ ইং

মৌলভীবাজারে করোনা মোকাবিলায় তৎপর সেনাবাহিনী

৫২৪ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি
সারা বিশ্বের মতোই করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় স্থবির বাংলাদেশ। করোনা মোকাবিলাকে যুদ্ধের সঙ্গে তুলনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আর এই যুদ্ধে সামনে থেকে লড়াইয়ের ঘোষণা দেন সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ। স্পষ্ট ভাষায় তিনি বলেন, ‘আমরা সৈনিক, আমরা সব সময় যুদ্ধ করতে প্রস্তুত এবং সেই প্রস্তুতি নিয়ে আমরা আছি।
সবাইকে সহযোগিতা করব।’ তার এই প্রবল আত্মবিশ্বাসী উচ্চারণ প্রমাণ করেছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধে তারা জীবন-মৃত্যুকে পায়ের ভৃত্য করেই দেশের মানুষকে সুরক্ষার কাজে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন।
২৫ মার্চ থেকে মাঠ পর্যায়ে এই লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে সেনাবাহিনী। সচেতনতা তৈরি, চিকিৎসা সেবা প্রদান ও লকডাউন কার্যকর করার পাশাপাশি দুস্থ ও অসহায়দের খাদ্য ও প্রয়োজনীয় উপকরণও সরবরাহ করছে দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনী।
মৌলভীবাজার জেলার ৭টি উপজেলায় মৌলভীবাজার, কমলগঞ্জ, শ্রীমঙ্গল, রাজনগর, কুলাউড়া, জুড়ি, বড়লেখাসহ প্রতিটি এলাকাতেই দুর্দশাগ্রস্ত মানুষের পাশে এসে দাঁড়াচ্ছে সেনা সদস্যরা। দেশপ্রেম আর মানবিক বোধ থেকেই মানুষের দ্বারে দ্বারে গিয়ে নিজেরা বিনামূল্যে ওষুধ ও স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করছেন। সেই সঙ্গে রোদ, বৃষ্টি ও ঝড় উপেক্ষা করে সড়কে সড়কে টহল দিয়ে সাধারণ মানুষকে যেমন সতর্ক করছে, তেমনি ‘সঙ্গনিরোধ’ নিশ্চিতেও তেড়েফুঁড়ে না ছুটে ইতিবাচক পদক্ষেপে জয় করেছে দেশের মানুষের হূদয়।
করোনা ভাইরাস বিশ্বে মৃত্যুর মিছিলে নিত্যদিন হাজার হাজার নাম যোগ করায় দেশের প্রতিটি জেলায় প্রায় ৬০০ দলে বিভক্ত হয়ে ৭৫০০ জনেরও বেশি সেনা সদস্য নানা কায়দায় ঘর থেকে বের হওয়া মানুষকে সচেতন করছে। প্রয়োজন অনুসারে এই সংখ্যা আরো বাড়াতে প্রস্তুত রয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।
মৌলভীবাজার সদর উপজেলা বিভিন্ন গ্রামের বাজার ঘুরে দেখা যায় বিকাল ৯:ঘটিকা পর্যন্ত বাজারে মানুষের সমাগম থাকে। বিশেষ করে সদর উপজেলায় কয়েকটি বাজারে এসব নির্দেশনা অমান্য করে ব্যবসায়ীরা দোকান খোলা রাখছে।
জেলার কিছু কিছু এলাকায় সরজমিনে দেখা যায় এলাকার কিছু অতি আগ্রহ ব্যক্তিরা রাস্তায় বাস বেধে লক ডাউন বলে ঘোষণা দিচ্ছে। এদিকে এমন অঘোষিত লক ডাউনে এলাকায় জন জীবনে বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছে।
এলাকার ভুক্তভোগী লোকেরা জানান, এমন কর্মকাণ্ডে বিশেষ প্রয়োজনে বাহিরে যেতে পারছেননা।
এস এম আবু বকর : মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

Some text

ক্যাটাগরি: মতামত

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি