মঙ্গলবার রাত ১২:৪৯, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ. ২৭শে মে, ২০২৪ ইং

জয়পুরহাটে চিকিৎসকদের দুটি সংগঠন অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ালো

৫৮৪ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

জয়পুরহাটে করেনা ভাইরাসের চলমান পরিস্থিতিতে ঘরবন্ধী শ্রমজীবি, দিনমজুর ও হতদরিদ্র মানুষের জন্য সরকারি অনুদানের ঘোষনা থাকলেও ত্রান সামগ্রী ধীরগতিতে পৌছায় এবং ত্রাণ না পাওয়ায় অনেকেই মানবেতর দিন কাটাচ্ছেন। যারা করোনার চেয়ে ক্ষুধার আতঙ্কে উৎকন্ঠায় রয়েছেন এমন অসহায় মানুষদের পাশে সহযোগীতার হাত বাড়ালেন চিকিৎসকদের সংগঠন বাংলাদেশ মেডিক্যাল এসোসিয়েশন (বিএমএ) ও স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ)।

সংগঠন দুটির এক দল চিকিৎসক চিকিৎসা উপকরণ ও খাদ্য সাামগ্রী নিয়ে কর্মহীন ও অসহায় মানুষদের বাড়ি বাড়ি যাচ্ছেন। আর্থিকভাবে অক্ষম মানুষদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা, পরামর্শ প্রদানসহ প্রতি জনকে ৫ কেজি চাল, ২ কেজি আলু, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি লবন, আধা কেজি ভোজ্য তেল ও ১টি করে সাবান দিচ্ছেন। আজ (রবিবার) থেকে শুরু হওয়া এ কর্মসূচির প্রথম দিনে ১৫০ জনকে এ ধরনের মানবিক সহায়তা দেওয়া হলো। এই ত্রান সামগ্রী বিতরনকালে উপস্থিত ছিলেন বিএমএ জয়পুরহাট জেলা শাখার সভাপতি ডাঃ মোজাম্মেল হক, সাধারন সম্পাদক ডাঃ কে এম জোবায়ের গালীব, স্বাচিপ এর জয়পুরহাট জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক ডাঃ আনোয়ার হোসেন, সহকারি অধ্যাপক (মেডিসিন) ডাঃ আব্দুর রাজ্জাক সহ দ’ুটি চিকিৎসক সংগঠনের নের্তৃবৃন্দ।

বাস টার্মিনাল এলকার বৃদ্ধা ছফুরা বেগম বলেন, ‘ বাবা লিত্তি সান্দেসমে আস্তার মোড়ত আন্ডা সিদ্ধ ও ভ্যাজে বেচেকিনে খাচুনো। ডাইনী করুনা (করোনা) অ্যাসে সব্বনাশ করলো। লেওদিনি একন জি ঘরত থাকা লাগোচে, বাড়ে বাড়ান পারুচি না। কামাইকাজ নাই। তয় ডাক্তর বাবারা আজগা যা দিলো কডাদিন চলবে। এরপর কি খামু, ক্যাংকা করে চলমু কও দিনি ব্যা।

জয়পুরহাট রেলবস্তির আসলাম, সিমেন্ট ফ্যাক্টরী সড়কের হারুন মিয়া, ষ্টেশন সড়কের ভ্রাম্যমান ভিক্ষুক আমেছা বিবিসহ অনুদানপ্রাপ্ত অনেকে এমন মন্তব্য করে বলেন, বিভিন্ন স্থানে সরকারি অনুদান দেওয়ার কাজ চললেও তাদের মত অনেকে এখনো সেই সহায়তা পাননি। তাই করোনা ভাইরাস মুক্ত না হওয়া পর্যন্ত প্রয়োজন মত সরকারি-বেসরকারি ত্রান সামগ্রীর প্রদানের দাবী জানান তারা।

বিএমএ জয়পুরহাট জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক ডাঃ কে এম জোবায়ের গালীব ও স্বাচিপ এর জয়পুরহাট জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক ডাঃ আনোয়ার হোসেন জানান, আজ থেকে শুরু হওয়া এ ধরনের মানবিক সহায়তা এই দুযোর্গকাল পর্যন্ত চলমান থাকবে।

শফিউল বারী রাসেল, জয়পুরহাট থেকে

Some text

ক্যাটাগরি: খবর, নাগরিক সাংবাদিকতা

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি