মঙ্গলবার সকাল ১০:০৩, ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ. ২১শে মে, ২০২৪ ইং

মৌলভীবাজারে ডাকাত সর্দার সাদ্দাম হোসেন কাজল গ্রেপ্তার

৫৪৫ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

মৌলভীবাজার জেলার সাম্প্রতিক ডাকাতির ঘটনাসহ সিলেট, হবিগঞ্জ জেলার অধিকাংশ ডাকাতির অন্যতম মূলহোতা একাধিক ডাকাতি মামলার ওয়ারেন্টধারী আসামী দুর্ধর্ষ ডাকাত সাদ্দাম হোসেন প্রকাশ কাজল মিয়া ও তার অপর সহযোগী সাহেল মিয়া কেগ্রেফতার করে মৌলভীবাজার জেলার মডেল থানা পুলিশ। আজ রবিবার (২৯ মার্চ) রাত ২:৫০ মিনিটে মৌলভীবাজার সদর থানাধীন শেরপুর বাজার এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মৌলভীবাজার সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে অফিসার ইনচার্জ মোঃ আলমগীর হোসেন, ইন্সপেক্টর (তদন্ত), পরিমল চন্দ্র দেব, ইন্সপেক্টর (অপারেশন্স) মোঃ হুমাযুন কবির, এসআই জিয়াউলসহ সদর থানা পুলিশের একটি বিশেষ টীম অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানে দুর্ধর্ষ ডাকাত সাদ্দাম হোসেন কাজলকে ও তার অপর সহযোগী সাহেল মিয়া কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।গ্রেফতার করার সময় পুলিশ ডাকাত সাদ্দাম হোসেন প্রকাশ কাজল মিয়ার হেফাজত থেকে একটি চাইনিজ কুড়াল ও একটি বিদেশী চাকু উদ্ধার করে।মৌলভীবাজার মডেল থানাসহ সিলেট জেলার ওসমানীনগর, জৈন্তাপুর, বিশ্বনাথ থানায়, হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ থানায় ০৬ টি ডাকাতি মামলা সহ খুন, চুরি, ডাকাতির প্রস্তুতি, অস্ত্র আইনের মামলাসহ সর্বমোট ১৩টি মামলা তার নামে রুজু আছে, যা বিজ্ঞ আদালতে বিচারাধীন ও তদন্তাধীন।

গত ১ মার্চ মৌলভীবাজার সদর উপজেলার নাজিরাবাদ ইউনিয়নের কমলাকলস গ্রামের ছালিক মাষ্টার এর বাড়িতে যে ডাকাতির ঘটনা ঘটে তাতে উক্ত ডাকাত সে নেতৃত্বে ছিল। উক্ত ডাকাতি সংঘটনের পর পর পুলিশের বিশেষ অভিযানে পুলিশের সাথে ডাকাত দলের গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। গোলাগুলির এক পর্যায়ে ঘটনাস্থলে মোঃ কামাল হোসেন বুলু নামের একজন ডাকাত নিহত হয় এবং অপর দুইজন ডাকাত গ্রেপ্তার হয়। ঘটনাস্থল থেকে সাদ্দাম হোসেন প্রকাশ কাজল মিয়া ও তাহার সহযোগী ডাকাতদের নিয়ে পালিয়ে যায়। সংগঠিত ডাকাতির ঘটনায় শতভাগ লুন্ঠিত মালামাল সহ ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জামাদি অস্ত্র, গুলি ও সিএনজি উদ্ধার হয়। উক্ত ডাকাত শুধু ডাকাতিই করে তা নয় বরং সে নতুন নতুন যুবক ছেলেদেরকে তার দলে ভীড়ায়। তাদের দুধর্ষ ডাকাতির আতংকে থাকে মৌলভীবাজারসহ পার্শ্ববর্তী জেলাসমূহের বাসিন্দাগণ। তাদের গ্রেফতারের খবরে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছে মৌলভীবাজারের জনসাধারন। এভাবে গ্রেফতারের ফলে মৌলভীবাজারে ডাকাতির মতো ঘৃন্য কার্যক্রম অনেকাংশে নির্মূল করা সম্ভব হবে বলে বিশ্বাস মৌলভীবাজার মডেল থানা পুলিশের। ডাকাতাদেরকে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

এস এম আবু বকর : মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

Some text

ক্যাটাগরি: মতামত

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি