বৃহস্পতিবার দুপুর ২:৪১, ১২ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ. ২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ ইং

পলি আক্তার ও কিছু কথা

৮৫৯ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

পলি আক্তাররা নিজের জন্য জন্মায় না।ওরা জন্মায় দেশ ও দেশের মানুষের জন্য।তাদের কর্মকান্ড গুলো যে কাউকেই মানবিক কাজে অনুপ্রেরণা জোগাবে বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস ।

এক সময়ের শিক্ষা, সাহিত্য, সংস্কৃতির পাদপীঠ খ্যাত ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সময়ের বিবর্তনে আজ যখন সামাজিক অবক্ষয় চরম আকার ধারণ করেছে।
ঠিক এমন দুঃসময়ে এসে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার হাজারো তরুণ তরুণী মানবতার কল্যাণে কাজ করতে মাঠে নেমে পড়েছে ।
কেউ চাই পরিচ্ছন্ন থাকুক ব্রাহ্মণবাড়িয়া,
কেউ চাই একটি মানুষ ও যেন না থাকে অসচ্ছল,
কেউ কেউ আবার শীতার্ত মানুষের পাশে দাড়াচ্ছেন প্রতিনিয়ত।

অন্য দিকে কেউ চাই- মাদক মুক্ত হোক ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

আবার অনেকেই চাই রক্তের অভাবে যেন না হারায় একটি প্রাণ ও।

আবার পলি আক্তার এর মতো মানবতাবাদী নারীরা গ্রামের পর গ্রাম ছুটে চলছে খেটে খাওয়া অসহায় মানুষের সন্ধানে – কখনো কারো হাতে তুলে দিচ্ছেন, ছাগল,সেলাইমেশিন, কখনো বা খাদ্য সামগ্রী নিয়ে ছুটে যাচ্ছে মানুষের দুয়ারে-দুয়ারে ।

আমি যখন দেখি আমার বাড়ির সামনে দিয়ে পলি আক্তাররেরা নিজের সুখ শান্তিকে পদদলিত কম্বল নিয়ে ছুটে চলে গ্রামের প্রত্যন্ত অঞ্চলে।

তখন ঐসব মানবতারবাদী তরুণ তরুণীদের নিয়ে নতুন করে আগামীর স্বপ্ন দেখার ইচ্ছে জাগতেই পারে।

পলি আক্তাররা নিজের জন্য জন্মায় না।
ওরা জন্মায় দেশ ও দেশের মানুষের জন্য।
তাদের কর্মকান্ড গুলো যে কাউকেই মানবিক কাজে অনুপ্রেরণা জোগাবে বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস ।

উৎসর্গ ফাউন্ডেশন ব্রাহ্মণবাড়িয়া- নামেই সংগঠনের কর্মীদের লক্ষ ও উদ্যেশ্য প্রস্ফুটিত হয়ে উঠেছে ।
গতকাল ছিল উক্ত সংগঠনটির ২য় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী , সাবলীল ভাবে অনুষ্টিত হয়ে গেল ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবে।
প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্টানে আমার ও উপস্থিত থাকার কথা ছিল।
কিন্তু একই দিন একই সময়ে শালগা্ও কালিসীমা গ্রামের এক ঝাক মানবতাবাদী সৌদি আরব প্রবাসী তরুণের হাতে গড়া স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন – সৌদি প্রবাসী সমাজ কল্যাণ যুব সংগঠন এর শীত বস্ত্র বিতরণী একটি অনুষ্ঠান থাকায় –
পলি আক্তার এর হাতে গড়া সংগঠনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে আসতে না পারায় মনটা বেশ খারাপ লাগছিল ” তারপর ও আনন্দের বিষয় হল আমিও আরেকটি মানবিক কাজেই যুক্ত ছিলাম।

না এসে ও সোস্যাল মিডিয়ার কল্যাণে দেখলাম পলি আক্তারদের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর ভিন্নতা – প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্টান গুলো যখন অন্যরা হৈ হুল্লোড় করে ব্যাপক অপচয়ের মাধ্যমে পালন করে ।
সেখানে ও তারা নিজেদের উৎসর্গ করল মানুষের কল্যাণে।
প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে তারা হৈ হুল্লোড় মুক্ত অপচয়হীন একটু অনুষ্টান করে নিজেদের জাত চিনালেন আগামীকে।
ঐ দিনটিতে তারা অসহায় মানুষের হাতে তুলে দিলেন ছাগল ও কম্বল –
নামের সাথে তাদের কাজের যে অভাবনীয় মিলন আমাকে বিষন ভাবে নাড়া দিয়েছে ।
সত্যিই পলি আক্তার তোমরাই পারবে আগামীতে নতুন করে সাজিয়ে তুলতে ।
তোমাদের হাত ধরেই আলোকিত হতে আমাদের প্রাণের আগামী ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।
তোমাদের প্রতি রইল আমার নিরন্তর ভালবাসা –
সুন্দর হোক উৎসর্গের আগামীর পথ চলা এই প্রত্যাশায়,,,

#মোঃ_মাহফুজুর_রহমান_পুষ্প
সাধারণ সম্পাদক
মানব কল্যাণ নবীণ সংঘ
গোকর্ণঘাট- ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

Some text

ক্যাটাগরি: মতামত

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি