বৃহস্পতিবার দুপুর ১:২৯, ১২ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ. ২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ ইং

স্বাধীনতা যুদ্ধে আত্মোৎসর্গকারী কসবার বীর সন্তানদের তালিকা

৪৮৬ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

১৯৭১ সালে আমাদের মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের অন্যতম রণাঙ্গন ২নং সেক্টরের কসবা।স্বাধীনতা যুদ্ধে আত্মোৎসর্গকারী কসবার বীর সন্তানদের শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি।

১. শহীদ আনোয়ার হোসেন, বীর উত্তম,(ইপিআর)পিতাঃ আব্দুল হামিদ ভূঁইয়া, গোপিনাথপুর, কসবা, রংপুরে পাকবাহিনীর সাথে সম্মুখ যুদ্ধে শহীদ হন।
২. শহীদ গোলাম রসূল, বীরবিক্রম (ইপিআর), পিতাঃ মোঃ মোফাজ্জল মিয়া, চকচন্দ্রপুর, বিনাউটি, কসবা।
৩.শহীদ হারুনুর রশীদ, গোপীনাথপুর, কসবা।
৪.শহীদ মমিনুল হক চৌধুরী (বাবুল), পিতাঃ মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ফজলুল হক চৌধুরী, গোপীনাথপুর, কসবা। এস.এস.সি. পরীক্ষার্থী শহীদ মমিনুল হক চৌধুরী একাত্তরের ১৫ ই নভেম্বর নবীনগর থানার রাধানগর এলাকার গেরিলা আক্রমণের সময় পাক বাহিনীর হাতে ধরা পড়ে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া কারাগারে কয়েকদিন বন্দী রাখার পর ২১ শে নভেম্বর তাকে বধ্যভূমিতে নিয়ে গুলি করে হত্যা করা হয়।
৫. শহীদ সেলিম ভূঁইয়া, পিতাঃ রিয়াজ উদ্দিন আহমদ, গোপীনাথপুর, কসবা।
৬. শহীদ রঙ্গু মিয়া খন্দকার, পিতাঃ শমশের আলী খন্দকার, গোপীনাথপুর, কসবা।
৭. শহীদ মন মিয়া, পিতাঃ আব্দুল আলিম, গোপীনাথপুর, কসবা।
৮. শহীদ শহীদুল হক ভূঁইয়া, পিতাঃ আব্দুল গনী ভূঁইয়া, চারগাছ কসবা (ইপিআর) দিনাজপুরে শহীদ।
৯. শহীদ নুরুল ইসলাম, পিতাঃ হাজী আব্দুল খালেক, নিমবাড়ি, মূলগ্রাম।
১০.শহীদ রফিকুল ইসলাম, পিতাঃ আলী আকবর, রাউতহাট, মূলগ্রাম।
১১. শহীদ জালু মিয়া, পিতাঃ খন্দকার আব্দুল মান্নান, রাণীয়ারা, কুটি কসবা।
১২. শহীদ মফিজুর রহমান, পিতাঃ শামসুল হক, নেমতাবাদ, বিনাউটি, কসবা।
১৩. শহীদ মোঃ সেলিম মোল্লা, পিতা আব্দুর রহমান মোল্লা, সায়দাবাদ, বিনাউটি।
১৪. শহীদ ইদ্রিছ মিয়া, পিতাঃ আব্দুল গফুর, বিশারাবাড়ি, কসবা।
১৫. শহিদ মাহফুজ মিয়া, পিতাঃ হাজী সুলতান মিয়া, শিমরাইল, মেহারী।
১৬. শহীদ আবুল খায়ের, পিতাঃ তালেব আলী, মেহারী।
১৭. শহীদ তাজুল ইসলাম, পিতাঃ হাজী সুলতান মিয়া, শিমরাইল, মেহারী।
১৮. শহীদ আব্দুর রউফ, পিতাঃ জয়দুল হুসেন, ঈশাননগর,মেহারি।
১৯.শহীদ আব্দুল আওয়াল, পিতাঃ আব্দুল আহাদ শিকারপুর বাদৈর।
২০.শহীদ রুহুল আমিন (সেনাবাহিনী), পিতাঃ আব্দুল সাত্তার,বুগীর, খাড়েরা।
২১.শহীদ মোঃ তাজু মিয়া (আনসার), পিতাঃ মোঃ আবু মিয়া, গোপীনাথপুর, কসবা।
২২.শহীদ সাহার মিয়া(পুলিশ),পিতাঃআবুল বাশার ভূঁইয়া,বুগীর,খাড়েরা।
২৩.শহীদ আবদুল হাকিম(সেনাবাহিনী), পিতাঃআঃমান্নাফ,ধামসার,খাড়েরা।
২৪.শহীদ আবদুস সালাম ভূইয়া,পিতাঃসরাফত আলী ভূইয়া,গোপীনাথপুর
২৫.শহীদ জয়নাল আবেদিন(সেনাবাহিনী),পিতাঃমুকতুল হোসেন,তালতলা, কসবা।
২৬.শহীদ আজগর আহমেদ (সেনাবাহিনী), পিতাঃ নায়েব আলী, পুরকুইল, মেহারী, কসবা।
২৭.শহীদ ফজলুল হক (সেনাবাহিনী), পিতাঃ আব্দুর রাজ্জাক ভূইয়া, শিমরাইল, মেহারী, কসবা।
২৮.শহীদ আবিদ আহাম্মদ (সেনাবাহিনী), পিতাঃ আব্দুল মজিদ, মাইজখার, কুটি, কসবা
২৯.শহীদ আব্দুর রউফ, (সেনাবাহিনী), পিতা নায়েব আলী, খাড়েরা, কসবা।
৩০.শহীদ মোঃ ইউনুছ মিয়া, (সেনাবাহিনী), পিতা মোঃ আব্দুল করিম, বিশারা বাড়ি, কসবা।
৩১.শহীদ মোহাম্মদ নূর মিয়া (ইপিআর) পিতাঃ মোঃ বদরউদ্দীন, আকবপুর, কসবা
৩২.শহীদ আবু তাহের, পিতাঃ আব্দুল মজিদ, মাদলা, কসবা।
৩৩.শহীদ পরেশ মল্লিক, পিতাঃ ভারতচন্দ্র মল্লিক, সৈয়দাবাদ, বিনাউটি।
৩৪.শহীদ মোঃ ফয়তুল ইসলাম,পিতা মানিক মিয়া, দেলি, খাড়েরা।
৩৫.শহীদ মোতাহের হোসেন, তিতাস সারফত আলী, মান্দারপুর, বাঁদৈর
৩৬.শহীদ মোঃ শামসুল হক, পিতাঃ আব্দুর রাজ্জাক, হাতুরাবাড়ী, বাঁদৈর।
৩৭.শহীদ আব্দুর রশিদ, পিতাঃ আবদুস সালাম,শিকারপুর, কসবা
৩৮.শহীদ সিরাজুল ইসলাম, পিতাঃ হাজী মুজিবুর রহমান ভূঁইয়া, শিকারপুর, বাদৈর।৩৯.শহীদ রফিকুল ইসলাম, পিতাঃ মনছুর আলী, নোয়াগাঁও ,কসবা।
৪০.শহীদ রফিকুল ইসলাম ভূঁইয়া, কাদের ভূঁইয়া,বায়েক।
৪১.শহীদ আব্দুস সালাম সরকার, পিতাঃ রইছউদ্দিন সরকার, নেয়ামতপুর, মূলগ্রাম,কসবা।
৪২.শহীদ আব্দুর রহমান, পিতাঃ আক্তারুজ্জামান, চকচন্দ্রপুর, বিনাউটি।
৪৩.শহীদ শাহজাহান সরকার, পিতাঃ সুরুজ মিয়া সরকার, নেমতাবাদ, বিনাউটি,কসবা ইমামবাড়ী রেলস্টেশনের উত্তর পাশে তাকে সমাহিত করা হয়েছে।
৪৪.শহীদ মোঃ আবুল হোসেন, কসবা থানাধীন বাঁদৈর ইউনিয়নের, জমশেদপুর গ্রামের উত্তর পাশে তার কবর রয়েছে।
৪৫.শহিদ আবুল কাশেম, হাজিগঞ্জ।
৪৬.শহীদ সেলিম খান, বায়েক ইউনিয়নের শ্যামপুরে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম ও সেলিম খান কে কবর দেওয়া হয়েছে। রঘুনাথপুরে নাম না জানা শহিদ মুক্তিযুদ্ধাদের কবর দেওয়া হয়েছে।
৪৭.শহীদ আব্দুর রহিম, খেওড়া, কসবা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, ৮ম বেঙ্গল রেজিমেন্টের নিয়মিত সৈনিক আব্দুর রহিম রংপুরের চিলমারী যুদ্ধে শহীদ হন।
৪৮.শহীদ আলমগীর কবির, বীর প্রতিক,কসবা যুদ্ধে শহিদ হন।
৪৯. শহীদ শাহজাহান সরকার। চতুর্থ বেঙ্গল রেজিমেন্টের সৈনিক। কসবার ইমামবাড়ি এলাকায় শহীদ হন।
৫০. শহীদ আবুল কাশেম ও
৫১. শহীদ সেলিম খান

কসবা থানার সীমান্ত এলাকায় সম্মুখ যুদ্ধে শহীদ হন। বায়েক ইউনিয়নের শ্যামপুর গ্রামের তাঁদের কবর রয়েছে।
৫২. শহীদ আবু জাহিদ (আবু)
৫৩. শহীদ সাইফুল ইসলাম (সাফু)
৫৪.শহীদ মোজাম্মেল হোসেন (আবু)

কসবা এলাকায় সম্মুখ যুদ্ধে শহীদ হন। লক্ষ্মীপুরে তাদের কবর দেওয়া হয়েছে। তারা হলেন :
৫৫. শহীদ লে. আজিজুর রহমান।
৫৬.শহীদ সুবেদার আবুল হোসেন।
৫৭. শহীদ হাবিলদার আব্দুল হালিম, বীর বিক্রম
৫৮. শহীদ হাবিলদার আবুল কাশেম।
৫৯.শহীদ নায়েক আবুল হোসেন।
৬০. শহিদুল লে. না. নুরুল হক।
৬১. শহীদ সিপাহী আবেদ আলী।
৬২.শহীদ সিপাহী এনামুল হক।
৬৩.শহীদ সিপাহী আবুল কাশেম
৬৪.শহীদ সিপাহী বোরহান উদ্দিন।
৬৫. শহীদ সিপাহী রফিকুল ইসলাম।
৬৬.শহীদ সিপাহী আব্দুর রাজ্জাক।
৬৭.শহীদ আবুল হোসেন।

এস এম শাহনূরঃ কবি ও আঞ্চলিক ইতিহাস গবেষক

Some text

ক্যাটাগরি: বিবিধ, মতামত

[sharethis-inline-buttons]

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি