বুধবার রাত ১০:১৫, ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ. ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ ইং

সুনসান মালয়েশিয়া: আটক আতঙ্কে ৬ লাখ বাংলাদেশি

৫৪১ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

১৮ মার্চ -২০২০ থেকে ঘোষিত লকডাউনে স্থবির হয়ে পড়েছে গোটা মালয়েশিয়া। মরণব্যাধি করোনাভাইরাস ঠেকাতে জন চলাচল ও গতিবিধি নিয়ন্ত্রণ আদেশের আজ ৩য় দিন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মালয়েশিয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা ৯০০+। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৭৫ জন।

মালয়েশিয়াব্যাপী লকডাউন ঘোষণার পর থেকে পুরো দেশটির পথঘাট এখন জনশূন্য। সব জায়গায় সুনসান নীরবতা। চলছে রাস্তা ঘাটে চেকিং। এ অবস্থায় দেশটিতে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশিসহ বিদেশিরা অনিশ্চিয়তায় দিন কাটাচ্ছেন।

মালয়েশিয়া প্রবাসী কিশোরগঞ্জের ইসমাইল হোসেইন ও গোপালগঞ্জের হায়দার ইসলাম জানান, সরকারের কঠোর অবস্থানের কারণে আমরা ঘর থেকে বের হতে পারছি না, গ্রেফতার আতঙ্কে রয়েছি। পাশাপাশি এখন কাজ না থাকায় বেকার জীবনযাপন করছি। করোনা ঠেকাতে দেশটির সরকার নতুন নতুন আদেশ জারি করে বন্ধ করে দিচ্ছে একের পর এক প্রতিষ্ঠান। প্রয়োজন ছাড়া কেউ বাহিরে গেলেই জেল জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে।

মালয়েশিয়া পুলিশের আইজিপি তানশ্রী আব্দুল হামিদ বদর সরকারের দেয়া ঘোষণা পালন করতে সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। বৃহস্পতিবার পোর্টডিকসন এলাকায় সিভিল কর্মীদের দায়িত্ব পালনে বাধা দেয়ায় ২৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

জেলা পুলিশ সুপার এইডির শাম মোহাম্মদ জানান, সিভিল কর্মকর্তাদের দায়িত্ব পালনে বাধা দেয়ায় ওই ব্যক্তিকে আটক করা হয়। শুক্রবার (২০ মার্চ) এক বিবৃতিতে পুলিশ সুপার বলেন, ২২ মার্চ পর্যন্ত তাকে রিমান্ডে রাখা হয়েছে। সরকারি কর্মচারী তার পাবলিক কাজ সম্পাদন করতে বাধা দেওয়ায় দণ্ড বিধির ১৮ অনুচ্ছেদে গ্রেফতারকৃত ব্যক্তির বিরুদ্ধে তদন্ত করা হচ্ছে।

তদন্তে অপরাধীর দুই বছর পর্যন্ত জেল বা ১০ হাজার রিঙ্গিত জরিমানা হতে পারে। পুলিশ সুপার শাম বলেছেন, পুলিশ এমসিও কার্যকর করার জন্য ৩১ মার্চ পর্যন্ত তাদের কার্যক্রম চালিয়ে যাবে।

এদিকে মুসলিম উম্মাহর সাপ্তাহিক গণজমায়েত জুমার নামাজ হচ্ছে না আজ। মালয়েশিয়ার ইসলামিক ফতোয়া বোর্ড ও মালয়েশিয়ার ধর্মবিষয়ক মন্ত্রী দেশটির রাজা ইয়াং ডি পারতুয়ান আগোং এর নিকট সকল ধরনের ফতোয়া ও ধর্মীয় বিশ্লেষণগুলো পেশ করার পর রাজার পক্ষ থেকে ইতিবাচক ও নির্দেশমূলক সিদ্ধান্ত জানানোর পর থেকে আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত পুরো মালয়েশিয়াজুড়ে জুমার নামাজসহ সকল সামাজিক ও ধর্মীয় জমায়েত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এদিকে মালয়েশিয়ার সেলাঙ্গর রাজ্যে ১৭ এপ্রিল পর্যন্ত জুমার নামাজসহ সকল মসজিদ বন্ধ ঘোষণা করেছেন রাজ্যের সুলতান শরাফউদ্দিন ইদ্রিস শাহ। এর আগে মালয়েশিয়ার পারলিস রাজ্যে জুমার নামাজ স্থগিত করা হয়েছিল। যা ছিল মালয়েশিয়ায় প্রথম জুমার নামাজ বন্ধের সিদ্ধান্ত।

বিশ্বে এখন সবচেয়ে বেশি আতঙ্ক ছড়াচ্ছে করোনাভাইরাস। এখন পর্যন্ত ১৭৯টি দেশে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। সারাবিশ্বে ২ লাখ ৪৫ হাজার ৬১৩ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। মারা গেছে ১০ হাজার ৪৮ জন। এছাড়া চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৮৮ হাজার ৪৩৭ জন।

করোনা আতঙ্কে অনেক দেশই অবরুদ্ধ (লক ডাউন) হয়ে পড়েছে। দোকান-পাট, ব্যবসায় বাণিজ্য, স্কুল, কলেজ সব বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত চীনে ৮০ হাজার ৯৬৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। অপরদিকে মারা গেছে ৩ হাজার ২৪৮ জন।

Some text

ক্যাটাগরি: খবর

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি