বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭:২২, ১২ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ. ২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ ইং

জয়পুরহাটে হোম কোয়ারেন্টাইনে ৮৪, একজন আইসোলেশনে

১৪৩০ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

জয়পুরহাট জেলায় বর্তমানে ৮৪ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। একজন বৃদ্ধকে রাখা হয়েছে আক্কেলপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন ওয়ার্ডে।

২৪ ঘন্টায় ১৪ জনসহ বিভিন্ন দেশ থেকে আসা ও তাদের সংস্পর্শে থাকা ৮৪ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হলো জেলাটিতে। সেখান থেকে আর হোম কোয়ারেন্টাইনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় এ পর্যন্ত ১২ জনকে মুক্ত করে দেয়া হয়েছে।

সিভিল সার্জন অফিস জানায়, জয়পুরহাট সদর উপজেলায় ২৮ জন, আক্কেলপুর উপজেলায় ২৬ জন, ক্ষেতলাল উপজেলায় ১৭ জন, পাঁচবিবি উপজেলায় ১০ ও কালাই উপজেলায় ৩ জনকে নিজ বাড়ির হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যক্তিরা যাতে বাইরে না যায়, তার জন্য স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে সবসময় নজরদারি করা হচ্ছে।

সিভিল সার্জন ডা: সেলিম মিঞা জানান, করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় নতুন করে কেউ বিদেশ থেকে আসলে বা কারো জ্বর-সর্দি দেখা দিলে দ্রুত তাকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখার প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিচ্ছি। হোম কোয়ারেন্টাইন থেকে কেউ যেনো বাইরে ঘোরাফেরা করতে না পারে সেদিকেও আমরা লক্ষ্য রাখছি। সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী ইতোমধ্যে সদর উপজেলায় আইএইচটি ভবনে ১১০ বেডের আইসোলেশন ওয়ার্ড স্থাপন করা হলেও পাশে অস্থায়ী র‌্যাব ক্যাম্প থাকায় র‌্যাব সদস্যদের নিরাপত্তার কারণে তা জয়পুরহাট ষ্টেডিয়ামে স্থানান্তর করা হয়েছে। আক্কেলপুর উপজেলায় ১০০ বেডের আইসোলেশন ইউনিট চালু করা হয়েছে। এছাড়াও সব উপজেলায় বেড স্থাপনসহ আরও বেড বাড়ানোর প্রস্ততি নেওয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, যারা হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন, স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা ও কর্মীরা সর্বক্ষণ তাদের নজরদারিতে রেখেছেন। ব্যাপক জনসচেতনতা কার্যক্রম চলছে। লিফলেট বিতরণসহ পৌরসভা, বিভিন্ন অফিস রুমে ও রেল ষ্টেশনে প্রবেশের আগে সাবান পানি দিয়ে হাত ধোয়ার জন্য নেয়া হয়েছে নিরাপত্তার ব্যবস্থা। এব্যাপারে সকলের সহযোগিতাও কামনা করেন তিনি।

শফিউল বারী রাসেল : জয়পুরহাট প্রতিনিধি

Some text

ক্যাটাগরি: খবর, নাগরিক সাংবাদিকতা

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি