রবিবার রাত ৮:৪৩, ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ. ১৯শে মে, ২০২৪ ইং

সারাঙ্গ এবং ট্র্যাডিশনাল পোষাক পরিধান করে ৪০০০ মানুষ মালয়েশিয়া দিবস উদ্বোধনে যোগদান

৫১৪ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

সারাঙ্গ এবং কুয়ালালামপুর, ১৬ সেপ্টেম্বর-১৯ নগরীর পাঁচটি (গণ র‌্যাপিড ট্রানজিট) এমআরটি স্টেশনে মালয়েশিয়া দিবসের সাথে মিলিতভাবে ‘কেরেতাপি সারং ২০১৯’ কর্মসূচির প্রতি সমর্থন জানাতে সরোং (লুংগী) ও ঐতিহ্যবাহী  পোশাক পরিহিত প্রায় ৪,০০০ মালয়েশিয়ার প্র্রাণকেন্দ্র কুয়ালালামপুুুরে একত্রিত হয়েছে।

অংশগ্রহণকারীরা কুয়ালালামপুর (কেএল) এর ব্যস্ততম রাস্তাগুলি পেরিয়ে মিছিল করে মারদেকা স্কয়ারে (বিজয় স্মরণী)  যাওয়ার আগে মাসজিদ জামেক স্টেশনে  দেশাত্মবোধক গান গেয়েছিলেন। তাদের উপস্থিতি শহরের লোকজন এবং পর্যটকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিল।

পর্যটন শিল্প ও সংস্কৃতি বিষয়ক উপমন্ত্রী মুহাম্মদ বখতিয়ার ওয়ান চিক বলেছেন, এই কর্মসূচির জন্য জনগণের অপ্রতিরোধ্য সহায়তায় মন্ত্রালয়টি উৎসাহিত হয়েছে এবং পরের বছর কুয়ালালামপুর ছাড়িয়ে এটি সকল সিটিতে সম্প্রসারণ করা হতে পারে।

“এই জাতীয় প্রোগ্রামে সংস্কৃতিতে সমৃদ্ধ বৈচিত্র্য এবং মালয়েশিয়া দিবস উদযাপনে মালয়েশিয়ার মধ্যে সংহতি দেখায়।

“এই জাতীয় কর্মসূচির মাধ্যমে মন্ত্রণালয় গত তিন বছর ধরে সরকারী সম্প্রদায় গোষ্ঠী, লোকাল কম্পেনিয়ান (লক্কো) এর মতো বেসরকারী সংস্থাগুলির সাথে একত্রে সারোং (লুংগী) পরিধানের ঐতিহ্যকে আবারো জীবনে ফিরিয়ে আনতে সহায়তা করেছে,” আজ একথা তিনি  গণমাধ্যমকে বলেন।

Some text

ক্যাটাগরি: খবর, নাগরিক সাংবাদিকতা

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি