সোমবার দুপুর ১:২৯, ১০ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ. ২৪শে জুন, ২০২৪ ইং

ঠাকুরগাঁও জেলা মডেল মসজিদের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

৬২০ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

ঠাকুরগাঁও জেলার আর্ট গ্যালারিতে মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। গণপূর্ত বিভাগের আয়োজনে (২০ সেপ্টেম্বর) শুক্রবার সকাল দশটায় আট গ্যালারিতে জেলা মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠান মোনাজাতের মাধ্যমে উদ্বোধন করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন, কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা খলিলুর রহমান।

জেলা প্রশাসক ডঃ কে এম কামরুজ্জামান সেলিমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন,পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ঠাকুরগাঁও ১ আসনের সাংসদ রমেশ চন্দ্র সেন এমপি।

জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদেক কুরাইশী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) নুর কুতুবুল আলম, আওয়ামী
লীগের সহ-সভাপতি মাহবুবুর রহমান খোকন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দীপক কুমার রায়, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি দ্রোপদী দেবী আগারওয়াল প্রমুখ।

ভিত্তিপ্রস্তর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ মনিরুজ্জামান সরকার,ইসলামী ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক মোঃ আবুল কাশেম, প্রেসক্লাবের সভাপতি মনসুর আলী, সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অমিত কুমার সাহা,জেলা পরিষদের সদস্য নজরুল ইসলাম স্বপন, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা আয়েশা সিদ্দিকা তুলি,জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য দেবাশীষ দত্ত সমীর।

অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ মনিরুজ্জামান সরকার।ইসলামিক ফাউন্ডেশন এর উদ্যোগে গণপূর্ত বিভাগের বাস্তবায়নে চারতলা মডেল মসজিদটির চুক্তিমূল্য ১৪ কোটি ৪৫ লক্ষ ১২ হাজার ৩ শত ৮৬ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে নির্মিত হবে।

এ সময় গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো: মনিরুজ্জামান সরকার ভবনটির বিবরণে বলেন,প্রথম তলায় ইমাম প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ও গণশিক্ষা কেন্দ্র, লাইব্রেরী,প্রতিবন্ধী এবাদত, অটিজম কর্ণার,‌ অজুখানা, বৈদ্যুতিক জেনারেটর,খাবার কক্ষ ও কফিন ঘরসহ কার পার্ক।

দ্বিতীয় তলায় প্রধান নামাজ ঘর, ইসলামিক রিসোর্স সেন্টার ,উপ-পরিচালকের কক্ষ । তৃতীয় তলায় পুরুষ-মহিলা প্রার্থনা কক্ষ, মোয়াজ্জিন/খাদেম কক্ষ, কর্মচারী কক্ষ, মেহমানখানা, লাইব্রেরী,‌ ইমাম কক্ষ শিক্ষক কক্ষ। চতুর্থ তলায় হেফজখানা, পুরুষ প্রার্থনা কক্ষ ও ইমাম মুয়াজ্জিন ও শিক্ষক কক্ষ।

পরে জেলা প্রশাসক ডঃ কেএম কামরুজ্জামান সেলিম তার সমাপনী বক্তব্যে বলেন, বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী ও দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ও দুরদর্শিতার ফলে উন্নয়নমূলক অনেক কাজ সফলভাবে করা সম্ভব হয়েছে।

নূরে আলম শাহ : ঠাকুরগাঁও থেকে

Some text

ক্যাটাগরি: খবর

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি