বুধবার রাত ১০:৪১, ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ. ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ ইং

ঠাকুরগাঁওয়ে দুর্যোগ সহনীয় ঘর নির্মাণ ও দরিদ্রদের মাঝে তা বিতরণ

৩৬৫ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

ঠাকুরগাঁওয়ে জেলা প্রশাসকের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সিদ্ধান্ত মোতাবেক দুর্যোগ সহনীয় ঘর নির্মাণ ও সঠিক গৃহহীন লোককে নির্বাচিত করে তাকে তার প্রাপ্য ঘরটি নির্মাণ করে প্রদান করা।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসকের কাছে জানতে চাইলে জেলা প্রশাসক ডঃকেএম কামরুজ্জামান সেলিম বলেন,দুর্যোগ সহনীয় ঘর নির্মাণ ও দরিদ্রদের মাঝে তা বিতরণের ব্যবস্হা গ্রহণ করা তা সমাজ ও রাষ্ট্রের জন্য কতটা মঙ্গলজনক হতে পারে আমরা কল্পনা করতে পারিনা।

বর্তমান সরকারের একটি নির্বাচনী অঙ্গীকার ছিল গৃহহীন মানুষদের গৃহ প্রদান করা।
তারই অংশ হিসেবে এ কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে। জেলা প্রশাসক বলেন,এজন্য আলাদাভাবে সরকারের কোন অর্থ বরাদ্দ করতে হয়নি। সাধারণ বরাদ্দ অক্ষুন্ন রেখে শুধু আগে টিআর, কাবিখা ও কাবিটায় যে বিশেষ বরাদ্দ দেয়া হতো সেটা বন্ধ করে সে অর্থ দিয়ে এ গৃহ নির্মাণ কাজে ব্যয়ের জন্য একটি সিদ্ধান্ত দিয়েছিলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী।
তাঁর নীতিগত সিদ্ধান্তটি জনমনে একটি উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হয় থাকবে।

যা ১ (এক) বছর আগেও আমরা কল্পনা করতে পারি নাই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শিতার ফলে এটি সম্পন্ন করা সম্ভব হয়েছে।
এর ফলে হতদরিদ্র ও গৃহহীন পরিবারগুলো আশার আলো দেখতে শুরু করেছে।
বিশেষ বরাদ্দের টিআর, কাবিখা ও কাবিটার অর্থ দ্বারা দরিদ্র মানুষের ভাগ্যের খুব একটা পরিবর্তন হয়েছে বলে মনে হয় না।

যার যত শক্তি ও ক্ষমতা ছিল সে সেভাবে বরাদ্দের অর্থ এনেছে ও খরচ করেছে।

কিন্তু এখন দৃশ্যপট পুরোটাই ভিন্ন ।
তবে এখনও একটি চ্যালেঞ্জ আছে। আর তা হলো সঠিক উপকারভোগী নির্বাচিত করা।
এক্ষেত্রে জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, স্হানীয় প্রশাসনসহ সবাই মিলে আমরা যদি সঠিক লোককে নির্বাচিত করে তাকে তার প্রাপ্য ঘরটি নির্মাণ করে দিতে পারা এটি জেলা প্রশাসনের প্রত্যাশা বলে তিনি জানান।

পরিশেষে যুগান্তকারী এ ধরনের জনকল্যাণ মূলক সিদ্ধান্ত নেয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান তিনি।

নুরে আলম শাহ::ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:

Some text

ক্যাটাগরি: খবর

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি