সোমবার বিকাল ৩:৩২, ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ. ২৭শে মে, ২০২৪ ইং

সন্ধান মেলেনি রাফিজার, গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন

৫৫৩ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

সাতক্ষীরার কালিগঞ্জের দিয়া গ্রামের রাফিজা নামক এক গৃহবধু ১৯ জুন অপহৃত হয়। অপহরণের ৬ দিন পর গত ২৫ জুন রাফিজার ভাই আল আমিন হোসেন বাদী হয়ে রাফিজার স্বামী সাগরসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে কালিগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ১১(গ), ৭/৩০ ধারায় ১৮ নং মামলা দায়ের করে। রাফিজা দিয়া গ্রামের আরিফুজ্জামান সাগরের স্ত্রী ও শ্যামনগর উপজেলার সোরা গ্রামের বাকপ্রতিবন্দী হাফিজুর রহমান মোল্যার কন্যা।

কালিগঞ্জ থানার মামলা সুত্রে ও ঘটনা অনুসন্ধানে জানা যায় প্রায় ৯/১০ মাস আগে কালিগঞ্জের দিয়া গ্রামের নাজিমুদ্দীনের পুত্র আরিফুজ্জামান সাগরের সাথে রাফিজার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে সাগর ও তার পরিবারের লোক জন রাফিজাকে এক লক্ষ টাকা যৌতুকের দাবীতে নির্জাতন করে আসছিলো। রাফিজার অসহয় প্রতিবন্দী পিতা যৌতুকের টাকা না দিতে পারায় ঘটনার দিন সাগর ও তার দলবল রাফিজাকে অপহরন করে অজ্ঞত স্থানে আটকে রেখেছে। বাদী তার মামলায় আর ও বলেন আসামীরা তার বোনকে মেরে ফেলতে পারে।

এদিকে ঐ গৃহবধু নিখোজ হওয়ার সাথে সাথে সাগর কালিগজ্ঞ থানায় একটা মিসিং ডায়েরী করে অপর দিকে রাফিজার ভাই একটি অভিযোগ দায়ের করে। রাফিজা সাগরের ২য় স্ত্রী তার ১ম স্ত্রী পরকিয়ার ফাদে পড়ে চলে গেলে রাফিজার সাথে বিয়ে হয়। বেশ কিছু দিন যাবত সাগর তার ১ম স্ত্রীর সাথে পুনরায় সম্পর্ক তৈরি করে এবং তাদের মেলা মেশার ছবি মোবাইলে ধারন করে রাফিজাকে দেখালে রাফিজা প্রতিবাদ করে। তাতেই সাগর রাগান্বিত হয়ে রাফিজাকে তার জীবন থেকে সরিয়ে দেয়ার কৌশল খুজতে থাকে।

এ ঘটনা রাফিজা তার মাকে জানালে সাগর ক্ষিপ্ত হয়ে ঐ দিন রাফিজাকে ব্যাপক মারপিট করে বলে রাফিজার মা জানান। ঘটনার বিষয়ে কালিগঞ্জ থানার ওসির কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন ভিকটিম উদ্ধার ও আসামী গ্রেফতারের জোর চেষ্টা চলছে। এ দিকে রাফিজার অপহরনকারীদের গ্রেফতারের দাবীতে আজ বিকালে এলাকাবাসী মানববন্ধন করেছে।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

 

 

Some text

ক্যাটাগরি: খবর, নাগরিক সাংবাদিকতা

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি