সোমবার সকাল ৬:১৮, ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ. ২৭শে মে, ২০২৪ ইং

বিচারের নামে তামাশা, কী শিখবে আগামী প্রজন্ম?

৯৯০ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর সভার গোকর্ন ঘাট গ্রামের দ্বি-পক্ষের বিবাদমান ঝগড়া শান্তিপূর্ণ নিষ্পত্তির লক্ষে গত ০৫/০৫/২০১৯ ইং তারিখে উক্ত গ্রামস্থ পুরাতন ঈদগাহ মাঠে এক শালিস বৈঠক অনুষ্টিত হয়। কিন্তু এই বৈঠকে বিচারের নামে বাদী পক্ষের সাথে যে তামাশা করা হয়েছে তা এখন পুরো গ্রামের সাধারণ মানুষের মাঝে ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দিয়েছে ।

গ্রামের সন্মানিত বয়োবৃদ্ধদের কাছে নতুন প্রজন্মের শিক্ষার আর কিছুই থাকল না । এখানে গ্রামের শালিস কারকগন যে নির্যাতিতের বিরুদ্ধে প্রতিশোধ পরায়ন ছিল । এটি আজ সবার কাছে প্রতিয়মান। সন্মান অর্জনের চমৎকার সুযোগ থাকার পর ও পক্ষপাতিত্ব করে চরম ঘৃনাই বয়ে নিয়ে গেল। গ্রামের মানুষকে অতি বোকা ভাবতে যাওয়া নিশ্চয় বুদ্ধিমানের কাজ নয়।।

এই বিচারের মাধ্যমে অপরাধীকে মূলত অপরাধ করতে উৎসাহিত করা হয়েছে, যা আগামীর জন্য ভুমেরাং হয়ে উঠতে পারে । এই নগ্ন বিচারে হোসেন মিয়া ( পিছনের) উপর হামলাকে নিন্দা পর্যন্ত জানানো হয়নি ।

এতে একটি বিষয় পরিস্কার হয়েছে যে, এই হামলায় অভিযুক্ত মোছার দুটি হাত ব্যবহার হলে ও এর সাথে আরো অনেকেরই মাথা ও ব্যবহার হয়েছিল ।
গোকর্ন ঘাটের ইতিহাসে বিচারের নামে এমন নোংড়ামো কেউ কোনদিন দেখেছে বলে মনে হয় না ।
ঐখানে ওরা নিন্দা না জানালে ও এমন হীন বিচার ব্যবস্থাকে নিশ্চয় নির্দ্বিধায় নিন্দা জানানো যায়।।

এখানে অপরাধ রোধ কল্পে একটি কঠিন বিচার হলে কিবা ক্ষতিই হয়ে যেত ? কিন্তু এই বিচারের মাধ্যমে আগামী প্রজন্মের কাছে নিজেদের নৈতিকতাকে এত হালকা করে তুলে ধরাটা আদৌ কি কোন সমাজ সচেতন মানুষের বুদ্ধিমাত্রার পরিচয় বহন করে ?
একটা প্রজন্ম আদর্শিক মানুষ পাওয়া থেকে বঞ্চিত থেকে গেল।
নবীনরা আলো খুঁজতে এসে আধাঁরেই ডুবে মরল,,,,,

আলোর মশাল হাতে আদৌ কি কেউ এগিয়ে আসবে ছয় হাজার জনসং্খ্যার আমাদের গাঁয় ?

মোঃ মাহফুজুর রহমান পুষ্প
সাধারণ সম্পাদক
মানব কল্যাণ নবীণ সংঘ
গোকর্ন ঘাট- ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।
মেইল- pushpabd1983Gmail.com

Some text

ক্যাটাগরি: চিন্তা

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি