বুধবার রাত ৯:৫৫, ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ. ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ ইং

আখাউড়ায় ঝুঁকিপূর্ণ ব্রীজ দিয়ে যান চলাচল

৮১৪ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

আখাউড়া-আগরতলা আন্তর্জাতিক সড়কের জাজির খালের উপর নির্মিত গুরুত্বপূর্ন বেইলি ব্রীজটি মারাত্বকভাবে ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে।

এ অবস্থায় যে কোনো সময় ভেঙ্গে পড়তে পারে ব্রীজটি। ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা, হতে পারে অনাকাঙ্ক্ষিত প্রাণহানী। বন্ধ হয়ে যেতে আখাউড়া স্থলবন্দরের আমদানি রপ্তানি বাণিজ্য।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সড়ক ও জনপদ বিভাগ কতৃপক্ষের দশ টনের উপরে যাতায়াত করা নিষেধ- এ নির্দেশিকা অমান্য করে আশংকা নিয়েই ব্রীজটির উপর দিয়ে প্রতিদিন যাতায়াত করছে আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে আসা ৪০ থেকে ৫০ টন ওজনের পণ্যবাহী ট্রাকসহ আখাউড়া-আগরতলা আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট দিয়ে আসা আগমনী ও বহির্গমনী যাত্রীরা।

পণ্যবাহী চালক-যাত্রী, পথচারী ও ব্যবসায়ীরা জানান, সড়ক বিভাগ ব্রীজের পাশে ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ সাইনবোর্ড লাগালেও বিকল্প কোনো ব্যবস্থা না থাকায় বাধ্য হয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়েই প্রতিদিন যাতায়াত করছে শত-শত যাত্রী ও মালবাহী যানবাহন। শুধু তাই নয়, ব্রীজের উপর দিয়ে প্রতিদিন যাতায়াত করেন ব্যবসায়ী, চাকুরীজীবি, স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ হাজার-হাজার পথচারী।

আখাউড়া স্থলবন্দরের অয়ার হাউজ সুপার মো:সামাউল ইসলাম জানান, ব্রীজের উপর দিয়ে দশ টনের অধিক পণ্যবাহী যানবাহন চলাচল করা নিষেধ থাকলেও প্রতিদিন ৪০থেকে ৫০ টন ওজনের পণ্যবাহী যানবাহন আসা যাওয়া করছে। আখাউড়া স্থলবন্দরের সি এন্ড এফ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোবারক হোসেন জানান, বিকল্প ব্যাবস্থা না থাকায় ঝুঁকি নিয়েই ব্রীজটি দিয়ে আখাউড়া স্থলবন্দরের মালামাল আসা যাওয়া করছে। তিনি সমস্যা সমাধানে বেইলী ব্রীজটি ভেঙ্গে স্থায়ী ভাবে পাকা ব্রীজ নির্মাণের দাবী জানান।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সড়ক বিভাগের প্রকৌশলী ভূইয়া রেজানুর রহমান বলেন, ‘ ব্রীজটি নতুন করে স্থায়ীভাবে নির্মাণের জন্য আমরা একটি প্রকল্প গ্রহণ করেছি। আশাকরি প্রকল্পটি পাশ হলেই ব্রীজটি নির্মাণ করা হবে।’

অমিত হাসান অপু :আখাউড়া প্রতিনিধি

Some text

ক্যাটাগরি: নাগরিক সাংবাদিকতা, মতামত

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

আমি প্রবাসী অ্যাপস দিয়ে ভ্যাকসিন…

লঞ্চে যৌন হয়রানি