সোমবার রাত ৯:৫৩, ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ. ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২৩ ইং

বিভিন্ন Funny Apps কেড়ে নিচ্ছে মুসলিমদের ঈমান।

৭৭৯ বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

ফেইসবুকের বিভিন্ন FUNNY APP কেড়ে নিচ্ছে মুসলিমদের ঈমান!
আমার wife কেমন হবে, আমার gf কেমন হবে,আমার কয়টি বাচ্চা হবে, ২০ বছর পর আমি দেখতে কেমন হব, বলে যারা বিভিন্ন পোষ্ট করছেন তারা নিজের অজান্তেই নিজের ঈমান হারিয়ে ফেলেছেন!
ভাই আপনারা কি আমার এই কথায় আশ্চর্য হচ্ছেন? আমাদের অজ্ঞ ও ভোগবাদী ইমানের জন্য আমরা হয়তো এই সূক্ষ্ম বিষয়টা অনুধাবন করতে পারিনা যে, Application এর মাধ্যমে এগুলো জানেত চাওয়াও এক ধরনের “হাতের রেখা গণনা করার মতোই “।
এতে আশ্চর্য হওয়ার কিছু নেই যেটা সত্য সেটাই বললাম..
আপনি ফেইসবুকের যেসব এ্যাপ ইউজ করে নিজের ভবিষ্যৎ জেনে নিচ্ছেন তা আপনার নিজের অজান্তেই আপনাকে মুশরিক বানিয়ে ফেলেছে! বানিয়ে ফেলছে আপনাকে কাফির ! বের করে দিচ্ছে আপনাকে মুসলিম মিল্লাত থেকে!
তওবা করে ফিরে আসুন..
ভাই আপনারা হয়তো ফান করার জন্যই পোষ্ট গুলি করছেন কিন্তুু এটা এমন এক বিষয় নিয়ে ফান করা হচ্ছে যা আপনার ঈমান ধ্বংস করে দিচ্ছে!
আপনি যে এপের আশ্রয় নিয়ে নিজের ভবিষ্যৎ জানলেন তাকে ইসলামী পরিভাষায় গায়িব বলা হয় বা ভবিষ্যৎ বক্তা বা গনকের কথা বিশ্বাস করাকে বুঝায়!
মনে রাখতে হবে পৃথিবীর কোন এ্যাপ গনক শুধু নয় পৃথিবীতে যত নবী রাসুল এসেছিলেন তারা কেউই গায়িব বা ভবিষ্যৎ জানতেন না! অথচ আপনি বিশ্বাস করছেন একটি এ্যাপ আপনার ভবিষ্যৎ জানে! আস্তাগফিরুল্লাহ!
আল্লাহ বলেনঃ
ﻗُﻞ ﻟَّﺎ ﻳَﻌْﻠَﻢُ ﻣَﻦ ﻓِﻰ ﭐﻟﺴَّﻤَٰﻮَٰﺕِ ﻭَﭐﻟْﺄَﺭْﺽِ ﭐﻟْﻐَﻴْﺐَ ﺇِﻟَّﺎ ﭐﻟﻠَّﻪُ ﻭَﻣَﺎ ﻳَﺸْﻌُﺮُﻭﻥَ ﺃَﻳَّﺎﻥَ ﻳُﺒْﻌَﺜُﻮﻥَ
বলুন, আল্লাহ ব্যতীত নভোমন্ডল ও ভূমন্ডলে কেউ গায়বের খবর জানে না এবং তারা জানে না যে, তারা কখন পুনরুজ্জীবিত হবে।
সূরা আন নম্ল (ﺍﻟﻨّﻤﻞ), আয়াত: ৬৫
উপরের আয়াতটি ভালভাবে দেখুন যেখানে পৃথিবীর কেউই গায়িব জানেনা একমাত্র আল্লাহ ছাড়া সেখানে আপনি একটি এ্যাপকে গায়িব জানে বলে বিশ্বাস করছেন! যেটা সরাসরি আল্লাহর সাথে শরিক করা..
রাসুল ﷺ বলেনঃ যে ব্যাক্তি কোন ভবিষ্যৎ বক্তা তথা গনক এ্যাপ পীর জ্বীনের কথা বিশ্বাস করে সে আমার উপর নাযিলকৃত কোরআন হাদিস অস্বীকার করল!
বলুনতো, যে ব্যাক্তি কোরআন হাদিস অস্বীকার করে সে কি মুসলিম হতে পারে??
অবশ্যই না!
ﻋَﻦْ ﺃَﺑِﻲ ﻫُﺮَﻳْﺮَﺓَ ﻭَﺍﻟْﺤَﺴَﻦِ ﻋَﻦ ﺍﻟﻨَّﺒِﻲِّ ﷺ ﻗَﺎﻝَ ﻣَﻦْ ﺃَﺗَﻰ ﻛَﺎﻫِﻨًﺎ ﺃَﻭْ ﻋَﺮَّﺍﻓًﺎ ﻓَﺼَﺪَّﻗَﻪُ ﺑِﻤَﺎ ﻳَﻘُﻮﻝُ ﻓَﻘَﺪْ ﻛَﻔَﺮَ ﺑِﻤَﺎ ﺃُﻧْﺰِﻝَ ﻋَﻠَﻰ ﻣُﺤَﻤَّﺪٍ ﷺ
আবূ হুরাইরা (রাঃ) হতে বর্ণিত, নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, ‘‘যে ব্যক্তি কোন ভবিষ্যৎ বক্তার নিকট উপস্থিত হয়ে সে যা বলে তা সত্য মনে (বিশ্বাস) করল, সে ব্যক্তি মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর উপর অবতীর্ণ (কুরআনের হাদিস ) অস্বীকার করল।’’
গ্রন্থঃ হাদীস সম্ভার
অধ্যায়ঃ ২২/ নিষিদ্ধ কার্যাবলী
হাদিস নম্বরঃ ২০৫৩
আহমাদ ৯৫৩৬, হাকেম ১৫, সহীহুল জামে’ ৫৯৩৯, ইবনু মাজাহ ৬৩৯, তিরমিজি ১৩৫ ইফাঃ
হাদিসের মানঃ সহিহ
অভিশপ্ত শয়তান আপনাদের কোথায় নিয়ে যাচ্ছে তা কি একটুও ভাববেন না??
রাসুল ﷺ আরো বলেন,যে ব্যাক্তি কোন ভবিষ্যৎ বক্তার কথা বিশ্বাস করে তার চল্লিশ দিনের সালাত কবুল হবেনা!
ﻭَﻋَﻦْ ﺻَﻔِﻴَّﺔَ ﺑِﻨﺖِ ﺃَﺑِﻲ ﻋُﺒَﻴﺪٍ ﻋَﻦ ﺑَﻌﺾِ ﺃَﺯﻭَﺍﺝِ ﺍﻟﻨَّﺒِﻲِّ ﷺ ﻭَﺭَﺿِﻲَ ﺍﻟﻠﻪُ ﻋَﻨﻬَﺎ ﻋَﻦِ ﺍﻟﻨَّﺒِﻲِّ ﷺ ﻗَﺎﻝَ ﻣَﻦْ ﺃَﺗَﻰ ﻋَﺮَّﺍﻓﺎً ﻓَﺴَﺄَﻟَﻪُ ﻋَﻦْ ﺷَﻲْﺀٍ ﻟَﻢْ ﺗُﻘْﺒَﻞْ ﻟَﻪُ ﺻَﻼَﺓٌ ﺃَﺭْﺑَﻌِﻴﻦَ ﻟَﻴﻠَﺔ ﺭﻭﺍﻩ ﻣﺴﻠﻢ
স্বাফিয়্যাহ বিনতে আবূ উবাইদ নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর কোন স্ত্রী (হাফসাহ রাযিয়াল্লাহু আনহা) হতে বর্ণনা করেছেন, নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি গণকের নিকট এসে কোন (গায়বী) বিষয়ে প্রশ্ন করে, তার চল্লিশ দিনের নামায কবুল করা হয় না।’
গ্রন্থঃ সহীহ মুসলিম (ইফাঃ)
অধ্যায়ঃ ৪০/ সালাম ( ﻛﺘﺎﺏ ﺍﻟﺴﻼﻡ )
হাদিস নম্বরঃ ৫৬২৭
হে আমার মুসলিম ভাইয়েরা শয়তানের ফাঁদে পড়ে কেন এভাবে নিজের ঈমান বিসর্জন দিচ্ছেন? ?
একটু ফান করতে গিয়ে শয়তান আপনাকে কাফির মুশরিকে পরিনত করছে অথচ আপনি টেরও পাচ্ছেন না!
কবে ফিরবে আপনাদের হুশ???

Some text

ক্যাটাগরি: মতামত

[sharethis-inline-buttons]

Leave a Reply

লঞ্চে যৌন হয়রানি